বই পড়ার অভ্যাস গড়তে জেসিআই ঢাকা ওয়েস্টের ‘আমার বই’

ভাষার মাসে শিক্ষার্থীদের বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে যাত্রা শুরু করেছে ‘আমার বই’ নামের একটি উদ্যোগ। আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল (জেসিআই) ঢাকা ওয়েস্ট ও প্রত্যুষের ‘জানতে হলে পড়তে হবে’ যৌথভাবে এটি নিয়ে প্রজেক্ট আকারে কাজ করছে।

রোববার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর মগবাজারে মডার্ন চাইল্ড’স এডুকেয়ার স্কুলে একটি বুক কর্নার স্থাপনের মাধ্যমে ‘আমার বই’র যাত্রা শুরু হয়েছে। বুক কর্নারটির উদ্বোধনী করেন জেসিআই ওয়ার্ল্ড ভাইস প্রেসিডেন্ট ফর এশিয়া প্যাসিফিক রাখি জৈন।

সে সময় আরো উপস্থিত ছিলেন জেসিআই বাংলাদেশের ভাইস প্রেসিডেন্ট নাজমুল হোসেন সবুজ, জেসিআই ঢাকা ওয়েস্টের প্রেসিডেন্ট মুহাম্মাদ আলতামিশ নাবিল, জেসিআই ঢাকা ওয়েস্টের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও প্রজেক্ট ডিরেক্টর মো. মাহমুদুর রাহমান এবং প্রজেক্ট লিড ও প্রত্যুষের কর্ণধার মো. তানভীর হাসান।

বুক কর্নার উন্মোচনের পাশাপাশি স্কুলটির শিক্ষার্থীদের নিয়ে একটি প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। চারটি ক্যাটাগরিতে বিজয়ীদের সর্বমোট ১৬টি পুরস্কার প্রদান করা হয়।

উদ্যোগটি প্রসঙ্গে জেসিআই ঢাকা ওয়েস্টের প্রেসিডেন্ট আলতামিশ নাবিল বলেন, ‘বই পড়ার সেই পুরনো অভ্যাসকে ফিরিয়ে আনতে আমাদের এই ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। সারাদেশের সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের স্কুলে বুক কর্নার তৈরি, ইংরেজি মাধ্যমের স্কুলের লাইব্রেরিতে বাংলা ফিকশন-নন ফিকশন বই সরবরাহ করা নিয়ে আমাদের উদ্যোগটি চলবে বছরব্যাপী। শুধুমাত্র বই বিতরণ নয়, বই পড়ার গুরুত্ব সবার সামনে তুলে ধরতে সামনে আয়োজন করা হবে আরো বেশকিছু কর্মসূচি।’

উল্লেখ্য, জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল (জেসিআই) ১৮ থেকে ৪০ বছর বয়সী উদ্যমী তরুণদের একটি সংগঠন। জেসিআই সদর দপ্তর যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরির সেন্ট লুইসে অবস্থিত। ১২০টিরও বেশি দেশে এর কার্যক্রম রয়েছে এবং সারা বিশ্বে এর সদস্য সংখ্যা ২ লাখেরও বেশি। বাংলাদেশে বর্তমানে জেসিআই-এর প্রায় ২৫টির অধিক লোকাল চ্যাপ্টার কাজ করছে। এরমধ্যে জেসিআই ঢাকা ওয়েস্ট বৃহৎ এবং প্রাচীনতম।

লেখকের অনুমতি ছাড়া সাইটে ব্যবহৃত সকল প্রকার লেখা পুনঃপ্রকাশ বেআইনি। জরুরী যোগাযোগে ইমেইলঃ altamishnabil@gmail.com

আরো পড়ুন...